সাতক্ষীরা। ১৫ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ৩১শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

কেশবপুরে জমি সংক্রান্ত বিরোধে নারীসহ গুরুতর আহত ৪

মশিয়ার রহমান। নিজস্ব প্রতিবেদক। কেশবপুর, যশোর
প্রকাশিত: ৩:২২ অপরাহ্ণ, মে ১২, ২০২২
আপডেট: ৩:২২:অপরাহ্ণ, মে ১২, ২০২২
যশোরের কেশবপুর উপজেলার প্রতাপপুর এলাকায় জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে প্রতিপক্ষের হামলায় নারীসহ ৪ জন গুরুতর রক্তাক্ত জখম হয়েছেন। গুরুতর  আহতদেরকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। আহতদের অবস্থা আশঙ্কা জনক। এ ঘটনায় ফারুক সরদার বাদি হয়ে ৬ জনের নামে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের  করেছেন। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। মামলার প্রস্তুতি চলছে।
 
বৃহস্পতিবার সকালে সরেজমিন ঘটনাস্থল ও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে দেখা যায়, উপজেলার প্রতাপপুর গ্রামের ফারুক সরদারের সাথে প্রতিবেশী এরফান সরদারের জমি সংক্রান্ত নিয়ে দীর্ঘদিন বিরোধ চলে আসছিল। গত ৯ মে (সোমবার)  সকালে এরই সূত্র  ধরে ফারুক সরদার বাড়িতে না থাকায় ওই ব্যক্তি লোকজন নিয়ে তার বাড়ির উঠানে গিয়ে চাচাতো ভাই ওসমান সরদারকে (৪০) অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকে। এ সময় প্রতিবাদ করলে তারা বাঁশের লাঠি, লোহার শাবল ও ধারালো গাছি দা দিয়ে তার ভাইকে মারপিট করতে থাকে। মারপিট ঠেকাতে গেলে ফারুক সরদারের স্ত্রী মঞ্জুয়ারা বেগম (২৬), চাচি নবিজান বেগম (৬০),  ভাবি ফতেমা বেগমকে (২৫) মাথায় ও দুই আঙ্গুলে কুপিয়ে এবং পিটিয়ে গুরুতর রক্তাক্ত জখম করে। প্রতিবেশীরা তাদের ডাকচিৎকারে এগিয়ে এসে হামলাকারীদের কবল থেকে আহতদেরকে উদ্ধার করে কেশবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করেন। এ ঘটনায় ফারুক সরদার বাদী হয়ে থানায় এরফান সরদার (৪৫), কালাম সরদার (৪০), রাজু হোসেন (২০), শিহাব হোসেন (২১), সালেহা বেগম (৪০) ও বিলকিছ খাতুনকে (৪২) আসামি করে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।
 
এ ব্যপারে কেশবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি ) মোহাম্মদ বোরহান উদ্দিন বলেন, অভিযোগ পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শনসহ হাসপাতালে ভর্তি গুরুতর জখম হওয়া আহতদের খোঁজ খবর নেয়া হয়েছে। এ রিপোর্ট লেখা পযর্ন্ত মামলার প্রস্তুতি চলছিল।



আপনার মতামত লিখুন :

  • এই বিভাগের সর্বশেষ