আমদানি নির্ভরতা কমিয়ে আনতে কৃষি উৎপাদন বৃদ্ধির ওপর জোর দেওয়া হয়েছে: কৃষি মন্ত্রী

প্রকাশিত: ৮:৫২ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১২, ২০২১ | আপডেট: ৮:৫২:অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১২, ২০২১
সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার কামারালি গ্রামে গ্রীষ্মকালিন টমেটো উৎপাদনকারী কৃষকদের সাথে মতবিনিময়কালে বক্তব্য রাখছেন কৃষি মন্ত্রী ড. আবদুর রাজ্জাক।

কৃষি মন্ত্রী ড. আবদুর রাজ্জাক বলেন, আমদানি নির্ভরতা কমিয়ে আনতে কৃষি উৎপাদন বৃদ্ধির ওপর জোর দেওয়া হয়েছে। দুর্যোগ জনিত সংকট মোকাবেলা করে উৎপাদন ধারাবাহিকতা বজায় রেখে আমরা অচিরেই কৃষি পণ্য রফতানি করবো। তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশ কৃষিতে বহুদুর এগিয়েছে। এখন মাঠ ঘাট কৃষি সম্পদে ভরে উঠছে।

আমাদের পুষ্টির নিরাপত্তার নিশ্চয়তা দিতে হবে জানিয়ে তিনি বলেন, কৃষিকে আধুনিকায়ন, যান্ত্রিকীকরন এবং সংরক্ষনযোগৗ করে তুলতে হবে। দেশে দানাদার খাদ্য উদ্বৃত্ত উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন এক সময় আমাদের দেশ ছিল খাদ্য ঘাটতির। এখন আমরা খাদ্যে উদ্বৃত্ত। দেশে জনসংখ্যার চাহিদা মেটাতে অনেক সময় কিছু পন্য বিদেশ থেকে আনতে হয়। সেগুলি খুব শীঘ্রি আমরা নিজেরা উৎপাদন বাড়িয়ে সেগুলি বিদেশে রপ্তানী করবো।

মন্ত্রী রোববার দুপুরে সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার কামারালি গ্রামে গ্রীষ্মকালিন টমেটো উৎপাদনকারী কৃষকদের সাথে মতবিনিময়কালে এসব কথা বলেন। কোনো জমি পতিত না রেখে কৃষিজ পণ্য উৎপাদনের আহবান জানিয়ে তিনি বলেন সরকার সার বীজ ও প্রয়োজনীয় ওষুধপত্র আপনাদের দোরগোড়ায় পৌছে দেবে। টমেটো উৎপাদনকারী ২৮৩ কৃষকের এই সমাবেশে ড. রাজ্জাক আরও বলেন সাতক্ষীরা জেলা দুর্যোগ প্রবণ হলেও এখানে উৎপাদিত কৃষি পণ্য দেশের বিভিন্ন ঘাটতি এলাকায় পৌছে যায়। এটা এক সাফল্য বলে মন্তব্য করেন তিনি।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন যারা আওয়ামী লীগ করেও নৌকার প্রার্থীদের হারানোর চেষ্টায় বিদ্রোহী প্রার্থী হবেন তারা আমাদের সমর্থন পাবে না কোনোদিন। বিশৃংখলা সৃষ্টির অভিযোগে তাদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তিনি বলেন আমাদের নির্বাচনের একটিই কৌশল তা হলো নৌকার প্রার্থীকে ভোট দেওয়া।

কৃষক সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন, সাতক্ষীরা ১ ও ২ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাড. মুস্তফা লুৎফুল্লাহ ও মীর মোস্তাক আহমেদ রবি, সিনিয়র সচিব মেজবাহুল ইসলাম, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের মহা পরিচালক মো. আসাদুল্লাহ, বাংলদেশ কৃষি উন্নয়ন কর্পোরেশনের চেয়ারম্যান ড. অমিতাভ সরকার, বাংলদেশ কৃষি গবেষনা কাউন্সিলের নির্বাহী চেয়ারম্যান ড. শেখ মো. বখতিয়ার, বাংলদেশ কৃষি গবেষনা ইন্সস্টিটিউটের মহাপরিচালক ড, মো. নাজিরুল ইসলাম, বাংলদেশ ধান গবেষনা ইন্সস্টিটিউটের মহাপরিচালক ড. মো. শাহজাহান কবির বাংলাদেশ পরমানু কৃষি গবেষনার মহাপরিচালক ড. মির্জা মোফাজ্জেল ইসলাম, সাতক্ষীরা কৃষি উপপরিচালক মো. নুরুল ইসলাম প্রমূখ। এ সময় জেলা প্রশাসক মো.হুমায়ূন কবির, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. নজরুল ইসলামসহ দলীয় নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

 

এসজি/ডেক্স


আপনার মতামত লিখুন :

নিজস্ব প্রতিবেদক। ডেক্স