ডুমুরিয়ায় জনপ্রিয় হচ্ছে ভাসমান বেডে সবজি ও মসল্লা চাষ

প্রকাশিত: ১০:৩৭ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৯, ২০২১ | আপডেট: ১০:৩৭:পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৯, ২০২১
ডুমুরিয়ায় ভাসমান বেডে সবজি ও মসল্লা চাষ পরিদর্শনে কৃষি অফিসার মোঃ মোসাদ্দেক হোসেন।

খুলনার ডুমুরিয়ায় জনপ্রিয় হচ্ছে আধুনিকভাবে ভাসমান বেডে সবজি ও মসল্লা চাষ। বর্তমানে উপজেলায় ৬০-৭০ জন্য কৃষকের ১২০-১৩০টি ভাসমান বেড রয়েছে। উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, প্রথমে রুদাঘরা ইউনিয়নের কয়েকজন কৃষক মাত্র ১০টি ভাসমান বেড নিয়ে চাষাবাদ শুরু। কিন্তু তারা অপরিকল্পিতভাবে ভাসমান বেডটি অনেক লম্বা ও চওড়া করতো। আর বেডের উপর উঠে সবজি পরিচর্যা করতো। ফলে বেড গুলো দ্রুত নষ্ট হয়ে যেত। 

পরে উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ মোঃ মোছাদ্দেক হোসেনের পরামর্শে আধুনিক উপায়ে ভাসমান বেডে চাষাবাদ করে কৃষকরা। নির্দিষ্ট চওড়া ও দৈর্ঘ্যের বেড নির্মাণ করে সুন্দর করে সাজিয়ে রাখাসহ পরিচর্যা ও ফসল তোলার জন্য ডিঙ্গি নৌকা ব্যবহার করছেন কৃষকরা। এতে দ্রুত জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে ভাসমান বেড়ে সবজি ও মসল্লা চাষ। উপজেলার কৃষকেরা এ পদ্ধতিতে সবজি ও মসল্লা চাষ করে লাভবান হচ্ছেন ।

বর্তমানে উপজেলার রঘুনাথপুর, রুদাঘরা ও রংপুর ইউনিয়নের মাহাতাব শেখ, হাফিজুর রহমান ও সুরমান গাজীসহ প্রায় ৬০-৭০ জন কৃষক করছেন ভাসমান বেড়ে চাষাবাদ।

২০১৮ সাল থেকে কৃষি বিভাগের ভাসমান বেডে সবজি ও মসল্লা চাষ সম্প্রসারণ প্রকল্পের আওতায় আনা হয়। এ কারণে ভাসমান বেডে সবজি ও মসল্লা চাষ করে অনেকেই লাভবান হচ্ছেন।


আপনার মতামত লিখুন :

গাজী আব্দুল কুদ্দুস। নিজস্ব প্রতিবেদক। চুকনগর, খুলনা