জামাতার ছুরিকাঘাতে শ্বাশুড়ি খুন, স্ত্রী আহত, জামাতা গ্রেফতার

প্রকাশিত: ৭:০৬ অপরাহ্ণ, জুলাই ১৭, ২০২১ | আপডেট: ৭:০৬:অপরাহ্ণ, জুলাই ১৭, ২০২১

সাতক্ষীরা সদর উপজেলার ঘোনা ইউনিয়নের ছনকা তালসারি গ্রামে জামাতার ছুরিকাঘাতে নিহত হয়েছেন শ্বাশুড়ি মোমেনা খাতুন নামের এক গৃহবধূ। একই সময়ে ধারালো ছুরির আঘাতে গুরুতর আহত হয়েছেন তার মেয়ে ফাতেমা খাতুন। তাকে স্থানীয় একটি হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

এ ঘটনায় গ্রেফতার করা হয়েছে মোমেনার জামাতা সদর উপজেলার পায়রাডাঙ্গা গ্রামের নেসারউদ্দিনের ছেলে মাতিনুর রহমানকে।

ঘটনাটি ঘটে শুক্রবার গভীর রাতে সাতক্ষীরা সদর উপজেলার ঘোনা ইউনিয়নের ছনকা তালসারি গ্রামে ফাতেমার বাবা গোলাম হোসেনের বাড়িতে।

পারিবারিক সূত্র ও পুলিশ জানায়, পায়রাডাঙ্গা গ্রামের মাতিনুরের সাথে ১৭ বছর আগে বিয়ে হয় ফাতেমা খাতুনের। তাদের একটি মেয়ে সন্তান রয়েছে। একমাস আগে তাদের ছাড়াছাড়ি হয়ে গেলে ফাতেমা বাবার বাড়ি ছনকা তালসারি গ্রামে চলে আসে।
পরিবারের সদস্যরা জানান, শুক্রবার রাতে মাতিনুর তাদের বাড়ি আসে। গভীর রাতে সুযোগ বুঝে সে ফাতেমার নাভির নিচে ধারালো ছুরি দিয়ে আঘাত করে। তাকে ঠেকাতে এলে মাতিনুর তার শাশুড়ি মোমেনাকে ছুরিকাঘাত করে। পরে মোমেনা মারা যান। অপরদিকে, ফাতেমাকে আহত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

সাতক্ষীরা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দেলোয়ার হুসেন জানান, নিহত মোমেনার মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। তিনি আরো জানান, এ ঘটনায় ইতিমধ্যে মোমেনার জামাতা মাতিনুরকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

 

এসজি/ডেক্স


আপনার মতামত লিখুন :

নিজস্ব প্রতিবেদক। ডেক্স