ঘূর্ণিঝড় “ইয়াস” মোকাবেলায় উপকুলীয় জেলা সাতক্ষীরায় সব ধরনের প্রস্তুতি গ্রহন

প্রকাশিত: ৬:২১ অপরাহ্ণ, মে ২৪, ২০২১ | আপডেট: ৬:২১:অপরাহ্ণ, মে ২৪, ২০২১
সাতক্ষীরার শ্যামনগরের উপকূলীয় এলাকায় ঘূর্ণিঝড় ইয়াস থেকে রক্ষা পেতে সবাই নিরাপদে থাকার জন্য মাইকিং করে সতর্ক করা হচ্ছে।

পূর্ব-মধ্য বঙ্গোপসাগর ও আশেপাশের এলাকায় সৃষ্ট গভীর নিম্নচাপটি ঘূর্ণিঝড় ইয়াস পরিণত হয়েছে। আগামী (২৬ মে) বুধবার সন্ধ্যায় সাতক্ষীরাসহ উপকূলীয় এলাকায় ঘূর্ণিঝড়টির আঘাত আনার সম্ভাবনা রয়েছে।

ঘূর্ণিঝড় ইয়াস মোকাবেলায় উপকুলীয় জেলা সাতক্ষীরার শ্যামনগর ও আশাশুনি উপজেলাসহ জেলায় সব ধরনের প্রস্তুতি গ্রহন করা হয়েছে। ইতোমধ্যে দুর্যোগ ঝুকিপূর্ণ এলাকার শতভাগ মানুষকে আশ্রয়কেন্দ্রে আনাসহ বিভিন্ন নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।
সোমবার (২৪ মে) দুপুরে সাতক্ষীরা আবহাওয়া অফিসের অফিসার ইনচার্জ জুলফিকার আলী রিপন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এদিকে,ঘূর্ণিঝড়কে সামনে রেখে সাতক্ষীরার শ্যামনগর ও আশাশুনি উপজেলাসহ বিভিন্ন এলাকায় ঝুকিপূর্ণ বেড়িবাঁধ গুলো জরুরি মেরামতের প্রয়োজনে পানি উন্নয়ন বোর্ড ও স্থানীয় জনসাধারণ বিভিন্ন উদ্যোগ গ্রহণ করেছে।

সোমবার দুপুরে তালা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তারিফ-উল-হাসানের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন তালা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ঘোষ সনৎ কুমার,তালা থানার ওসি মোঃ মেহেদী রাসেল, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান সরদার মশিয়ার রহমান, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মুরশিদ পারভীন পাঁপড়ী,শহীদ মুক্তিযোদ্ধা মহাবিদ্যালয় অধ্যক্ষ এনামুল ইসলাম,তালা প্রেসক্লাবের সভাপতি প্রণব ঘোষ বাবলু,তালা উপজেলার প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোঃ ওবায়দুল হকসহ দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্যবৃন্দ।

এসময় সরকারি কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি, বীর মুক্তিযুদ্ধা, শিক্ষক, ইমাম, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, সাংবাদিক, এনজিও প্রতিনিধি, সুধী সমাজ ও উপজেলার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক এসএস মোস্তফা কামাল বলেন, আশঙ্কা করা হচ্ছে ঘূর্ণিঝড় ইয়াস সাতক্ষীরা খুলনা উপকূলে আঘাত হানতে পারে। সে ধরনের পূর্বাভাস দেখেই আমরা আগে থেকেই প্রস্তুতি সভা করেছি।

তিনি আরও বলেন, সাতক্ষীরা জেলায় ১৪৫ টি ঘূর্ণিঝড় আশ্রয় কেন্দ্র রয়েছে। এছাড়া আমাদের ১৫০০ স্কুল কলেজ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে প্রস্তুত রাখা হয়েছে। এছাড়া ১৮৩ মেট্রিক টন খাদ্যশস্য মজুদ রয়েছে। দুই কোটি ১৫ লাখ টাকার নগদ অর্থ সহায়তার জন্য রয়েছে। পর্যাপ্ত পরিমাণ পানি বিশুদ্ধকরণ ট্যাবলেট ও ওয়াটার ট্যাংকি রয়েছে। পুলিশ, আনসার, বিজিবি ও স্বাস্থ্য বিভাগ প্রস্তুত রয়েছে। জেলা প্রশাসন সব সময় সজাগ থেকে বরাবরের মত দুর্যোগ মোকাবেলায় সক্ষম হবে।

তিনি আরো জানান, ঘূর্ণিঝড় “ইয়াস’ মোকাবেলায় উপকুলীয় জেলা সাতক্ষীরায় যাতে কোন ধরনের জান মালের ক্ষতি না সে জন্য জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ইতিমধ্যে সব ধরনের প্রস্তুতি গ্রহন করা হয়েছে।

সাতক্ষীরা জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাতক্ষীরা জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ নজরুল ইসলাম জানান, স্বাস্থ্যবিধি মেনে বাঁধ মেরামত ও মানুষকে নিরাপদ আশ্রয়ে সরিয়ে নিতে সাতক্ষীরার আওয়ামী লীগের সকল অঙ্গ ও সহযোগি সংগঠনের নেতা-কর্মীদের পাশাপাশি আওয়ামী লীগ সমর্থিত বিভিন্ন পর্যায়ের চেয়ারম্যান মেম্বারসহ জনপ্রতিনিধিদের সক্রিয়ভাবে মানুষের পাশে থাকার আহবান জানিয়েছেন।

 

এসজি/ডেক্স


আপনার মতামত লিখুন :

নিজস্ব প্রতিবেদক। ডেক্স