ঘূর্ণিঝড় যশ মোকাবেলায় কালিগঞ্জ উপজেলা প্রশাসনের জরুরী প্রস্তুতি সভা।

প্রকাশিত: ৮:২৩ পূর্বাহ্ণ, মে ২৩, ২০২১ | আপডেট: ৮:২৪:পূর্বাহ্ণ, মে ২৩, ২০২১

ঘূর্ণিঝড় যশ মোকাবেলায় কালিগঞ্জ উপজেলা প্রশাসনের জরুরী প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। তীব্র তাপদাহে পুড়ছে দেশ গরমে অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছে জনজীবন, করোনাভাইরাস দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবেলায় যখন আতঙ্কিত ঠিক তখনই বঙ্গোপসাগরে লঘুচাপ এর প্রভাব সপ্তাহজুড়ে নেই বৃষ্টির সুখবর লঘুচাপটি শনিবার রাত থেকে নিম্নচাপের রূপ নিতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস। ২২ মে শনিবার সকাল ১১ টায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সম্মেলন কক্ষে ঘূর্ণিঝড় যশ মোকাবেলায় কালিগঞ্জ উপজেলা প্রশাসন ও উপজেলা দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির আয়োজনে এক জরুরি প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও উপজেলা দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি খন্দকার রবিউল ইসলামের সভাপতিত্বে ও উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্য সচিব মিরাজ হোসেন খান

এর সঞ্চালনায় প্রস্তুতি সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন কালীগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সাঈদ মেহেদী, সভায় বক্তব্য রাখেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাক্তার শেখ তৈবুর রহমান, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার আবুল কালাম আজাদ, উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা অন্যা চক্রবর্তী, কালীগঞ্জ উপজেলা পানি উন্নয়ন বোর্ডের এস ও তনময় হালদার, উপজেলা পল্লী বিদ্যুৎ অফিসের জোনাল অফিসার পঙ্কজ শিকদার, উপজেলা ফায়ার সার্ভিসের প্রতিনিধি, উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক ও তারালী ইউপি চেয়ারম্যান এনামুল হোসেন ছোট, কালিগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি শেখ সাইফুল বারি সফু, সাধারণ সম্পাদক সুকুমার দাস বাচ্চু, বাংলাদেশ সমিতি কালিগঞ্জ শাখার সভাপতি শেখ আনোয়ার হোসেন, দৈনিক দৃষ্টিপাত ব্যুরো প্রধান আশেক মেহেদী, নবযাত্রা কালিগঞ্জ ফিল্ড অফিস ম্যানেজার আশিক বিল্লাহ, কুশুলিয়া ইউপি চেয়ারম্যান শেখ এবাদুল ইসলাম, নলতা ইউপি চেয়ারম্যান আজিজুর রহমান, চাম্পাফুল ইউপি চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হক গাইন, মথুরেশপুর ইউপি চেয়ারম্যান

মিজানুর রহমান, রতনপুর ইউপি চেয়ারম্যান আশরাফুল হোসেন খোকন, কৃষ্ণনগর ইউপি চেয়ারম্যান আকলিমা খাতুন লাকি, বিষ্ণুপুর ইউপি চেয়ারম্যান শেখ রিয়াজ উদ্দিন সহ সাংবাদিকবৃন্দ উপজেলা দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্য উপস্থিত ছিলেন সভায় জরুরী ভিত্তিতে সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। করোনাকালীন সময় সুরক্ষিত থেকে দুর্যোগ মোকাবেলায় সকলকে এগিয়ে আসবেন এবং সতর্ক থাকতে হবে কালিগঞ্জ উপজেলার ১২টি ইউনিয়নে সাইক্লোন সেন্টার সহ ১১২ টি আশ্রয় কেন্দ্র তালিকা রয়েছে পাশাপাশি বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান আশ্রয় কেন্দ্র হিসেবে ব্যবহার করা হবে। এই সকল আশ্রয় কেন্দ্র গুলি জরুরী ভিত্তিতে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এর মাধ্যমে ৪০ দিনের কর্মসূচি কাজের লোকজন দিয়ে পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখতে হবে এবং ঝুঁকিপূর্ণ ভেরি বাদ মেরামতের কাজে কাজ করবে পাশাপাশি দুর্যোগ মোকাবেলায় আশ্রায়

কেন্দ্রগুলিতে প্রতিবন্ধী গর্ভবতী মা শিশু ও বৃদ্ধদের এবং সাধারণ মানুষদেরকে নিয়ে আসার জন্য প্রচার প্রচারণা চালাতে হবে। এজন্য জন্য মসজিদের ইমাম ইউনিয়ন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটি ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য ও স্বেচ্ছাসেবকদের ব্যাপক প্রচার প্রচারণা চালাতে হবে। পাশাপাশি ত্রাণ সামগ্রী মেডিকেল টিম বিদ্যুৎ বিভাগ ফায়ার সার্ভিস এবং উপজেলা ও প্রতিটি ইউনিয়নের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটি ও স্বেচ্ছাসেবক বৃন্দ প্রস্তুত থাকবে। কালিগঞ্জ উপজেলায় ২৪ ঘন্টা কন্ট্রোল রুম খোলা থাকবে। দুর্যোগের আগে ও পরে যে কোন প্রয়োজনে যোগাযোগ রাখতে হবে প্রাথমিক পর্যায়ে শুকনো খাবার সংগ্রহ করা রাস্তায় গাছ পড়ে গেলে দ্রুত গতিতে কাজ করানোর জন্য করাতকলের ব্যবস্থা করা সর্বোপরি ঘূর্ণিঝড় মোকাবেলায় কালিগঞ্জ উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সব ধরনের প্রস্তুতি গ্রহণ করা হবে বিশেষ করে নবযাত্রার পক্ষ থেকে প্রতিটি ইউনিয়নে দুর্যোগ মোকাবেলায় যে সমস্ত সরঞ্জাম জিনিসপত্র দেয়া হয়েছে সেগুলি চেয়ারম্যানদের মাধ্যমে স্বেচ্ছাসেবকরা প্রস্তুত থাকবে।


আপনার মতামত লিখুন :

নূর ইসলাম বাবু। সংবাদদাতা। কালিগঞ্জ, সাতক্ষীরা