শ্যামনগরে কিশোরীকে উত্যক্ত, প্রতিবাদ করায় ৫টি বসতবাড়ি ও ৩টি রাসমন্দির ভাংচুর

প্রকাশিত: ৪:২৮ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ১৪, ২০২১ | আপডেট: ৪:২৯:অপরাহ্ণ, এপ্রিল ১৪, ২০২১

সাতক্ষীরার শ্যামনগরে কিশোরী মেয়েকে উত্যক্ত করার প্রতিবাদ করায় বখাটে যুবক পল্লবের নেতৃত্বে একদল দূর্বৃত্ত ৫টি বসতবাড়ি ও ৩ টি রাসমন্দির ভাংচুর করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় সাত জন নারীপুরুষ আহত হয়েছেন। আহতরা শ্যামনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। মঙ্গলবার রাতে মুন্সিগঞ্জ ইউনিয়নের ফুলতলায় গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটে।

আহতরা হলেন, ফুলতলা গ্রামের নগেন্দ্র বাউলিয়া (৬০), সুভাষ বাউলিয়া (৪২), গোবিন্দ বাউলিয়া (৪০), যতীন বাউলিয়া (৩৮), মিলন বাউলিয়া (২০), নিত্যানন্দ (১৮), মমতা বাউলিয়া (২৫) ও তপন বাউলিয়া (৪৮)।

শ্যামনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নাজমুল হুদা জানান, একই উপজেলার কদমতলা গ্রামের বখাটে তরুণ পল্লব মন্ডল ফুলতলা গ্রামের ৮ম শ্রেণিতে পড়ুয়া এক কিশোরী মেয়েকে প্রায়ই উত্যক্ত করতো। এর জেরে সোমবার বিকেলে ফুলতলা গ্রামের কয়েকজন তরুণ পল্লবকে এ ঘটনার প্রতিবাদ করে। এর প্রতিশোধ নিতে মঙ্গলবার রাতে পল্লবের নেতৃত্বে ১০/১২টি মোটরসাইকেল ও পিক-আপে ৩০/৪০ জন সন্ত্রাসী ফুলতলা গ্রামের বাউলিয়া পরিবারের ৫টি বাড়িতে হামলা চালায়। পরবর্তীতে ওই কিশোরীকে অপহরণ করার চেষ্টা করে সন্ত্রাসীরা। এতে বাঁধা দিলে যতিন বাউলিয়া, গোবিন্দ বাউলিয়াসহ কমপক্ষে ৭ জন আহত হন।

 

পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানান পুলিশ কর্মকর্তা।

 

এসজি/ডেক্স


আপনার মতামত লিখুন :

নিজস্ব প্রতিবেদক। ডেক্স