চুকনগরে অজ্ঞান পার্টি সিন্ডিকেটের দুই সদস্য আটক

প্রকাশিত: ১:৫৯ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ১, ২০২১ | আপডেট: ১:৫৯:অপরাহ্ণ, এপ্রিল ১, ২০২১

চুকনগরে অজ্ঞান পার্টি সিন্ডিকেটের দুই সদস্যকে আটক করেছে জনতা। বুধবার বেলা ১১টার দিকে তাদেরকে আটক করা হয়। পরে গণধোলায় দিয়ে পুলিশের কাছে সৌপাদ্য করা হয়।

পুলিশ ও ভুক্তভোগী সূত্রে জানা যায়, বেশ কিছুদিন ধরে অজ্ঞান পার্টির সদস্যরা সাধারণ মানুষকে অজ্ঞান করে মালামাল ছিনিয়ে নিয়ে পালিয়ে যায়। এরই ধারাবাহিকতায় গত দেড় মাস আগে সাতক্ষীরা জেলা আশাশুনি উপজেলার গজুয়াকাটি গ্রামের পরিতোষ সরদারের কন্যা স্বপ্না সরদার(২১)এর কাছ থেকে তাকে অজ্ঞান করে চুকনগর এলাকা হতে প্রায় আট আনা ওজনের স্বর্ণালংকার ছিনিয়ে নিয়ে যায় অজ্ঞান পার্টি সিন্ডিকেটের দুই সদস্য। সেই থেকে স্বপ্না সরদার প্রতিদিনই চুকনগর বাজারে তাদেরকে খুঁজতে থাকে। একপর্যায়ে বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে সেই অজ্ঞান পার্টি সিন্ডিকেটের দুই সদস্য চুকনগর বাজারে দেখতে পেয়ে চিনতে পারেন। সাথে সাথে তিনি চিৎকার দিয়ে লোকজন জড়ো করে তাদেরকে ধরে ফেলে গণধোলাই দিয়ে চুকনগর হাইওয়ে থানা পুলিশের কাছে সৌপাদ্য করেন। এরা হলেন খুলনা হরিণটানা থানার ইসলাম নগর গ্রামের আব্দুস সোবহানের পুত্র আলমগীর হোসেন( ৩০) এবং খুলনার সোলডাঙ্গা উপজেলার গল্লামারী গ্রামের রফিকুল ইসলাম গাছির পুত্র সুমন গাছি(২৬)।

জানা যায়, এই অজ্ঞান পার্টির সদস্যরা ইতিপূর্বে খুলনার ফুলতলা উপজেলার বেগুন বাড়িয়া গ্রামের সরোয়ার শেখের স্ত্রী তাছলিমা বেগম(৬০) ও তার পুত্রবধু নাদিরা পারভীন মুন্নির কাছ থেকে গত ০৪/০১/২১ইং তারিখে আট আনা ওজনের একজোড়া স্বর্ণের দুল, এক ভরি ওজনের স্বর্ণের চেইর,নগত ১০হাজার ৫শত টাকা ছিনিয়ে নেয়। এঘটনা তারা থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে। এরপর গত ২৩/০১/২১ইং তারিখে যশোরের কেশবপুর উপজেলার আড়–য়া গ্রামের মোঃ আবু তাহের গাজীর স্ত্রী মোছাঃ সিমা খাতুনের কাছ থেকে একটি স্বর্ণের চেইন, ১জোড়া কানের দুল,২টি আংটি ও শ্বাশুড়ীর গলায় থাকা ১টি স্বর্ণের চেইন ছিনিয়ে নেয়। এঘটনা তারাও থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে। এরপর গত ০২/০২/২১ইং তারিখে খুলনার ডুমুরিয়া উপজেলার কাঞ্চনপুর গ্রামের সোবহান আলী মোড়লের স্ত্রী নুরী বেগমের কাছ থেকে ১ভরি স্বর্ণের চেইন ছিনিয়ে নেয়। পুলিশ জানায় চুকনগরে অজ্ঞান পার্টি সিন্ডিকেটের দুই সদস্য আটক হয়েছে এ্ই সংবাদে উপরোল্লিখত ব্যক্তিরা চুকনগর হাইওয়ে থানার সামনে উপস্থিত হয়। এসময় তাদের মালামাল কেড়ে নেয়ার মূল হোতা এই দুইজনকে চিনতে পারে এবং তারা কান্নায় ভেঙ্গে পড়ে।

ভুক্তভোগী ব্যক্তিরা জানায়,এই অজ্ঞান পার্টির সদস্যরা তাদেরকে ইজিবাইকের যাত্রী হিসাবে গাড়িতে তুলে নেয়। এরপর পথিমধ্যে আরও দুই এক জন সদস্য রাস্তা থেকে তুলে নেয়। এরপর ফাঁকা রাস্তায় গিয়ে তাদেরকে অজ্ঞান করে মালামাল কেড়ে নিয়ে পথিমধ্যে তাদেরকে ফেলে রেখে চলে যায়। এ রির্পোট লেখা পর্যন্ত আটককৃতদের ডুমুরিয়া থানা পুলিশের কাছে হস্থান্তর করা হয়।


আপনার মতামত লিখুন :

গাজী আব্দুল কুদ্দুস। নিজস্ব প্রতিবেদক। চুকনগর, খুলনা