কলারোয়া পৌর নির্বাচনে অনিয়মের বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু হয়েছে

প্রকাশিত: ১:৫৬ অপরাহ্ণ, মার্চ ১৬, ২০২১ | আপডেট: ১:৫৬:অপরাহ্ণ, মার্চ ১৬, ২০২১

কলারোয়া পৌরসভা নির্বাচনে বিভিন্ন অনিয়মের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে দায়ের করা এক রিট আবেদনের প্রেক্ষিতে তদন্ত শুরু হয়েছে। গত ৩০ জানুয়ারি এই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।

সোমবার ঢাকা আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা শাহেদুন্নবী চৌধুরীর নেতৃত্বে ৩ সদস্যের একটি দল এই তদন্ত শুরু করেছে। তদন্ত দলে আরও রয়েছেন নির্বাচন কমিশন অফিসের উপসচিব আব্দুল হালিম খান এবং সিনিয়র সহকারী সচিব বিপ্লব দেবনাথ। তদন্ত দলটি সোমবার সকালে কলারোয়া উপজেলা মিলনায়তনে এই তদন্ত শুরু করেন।

 

তদন্ত কর্মকর্তারা নির্বাচনের দিনে প্রতিটি কেন্দ্রে দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রিজাইডিং অফিসার, সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার, পোলিং অফিসার এবং পুলিশ সহ পরাজিত প্রার্থীদের সাক্ষাৎকার গ্রহন করেন। তারা তাদের লিখিত জবানবন্দীও লিপিবদ্ধ করেন।

 

সাতক্ষীরা জেলা নির্বাচন অফিসার মোঃ নাজমুল কবির জানান, ৩০ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত নির্বাচনে কয়েকজন পরাজিত প্রার্থী সংক্ষুব্ধ হয়ে পুনর্নিবাচনের জন্য নির্বাচন কমিশনে আবেদন করেন। এই আবেদন নিষ্পত্তি হতে বিলম্ব হওয়ায় তারা হাইকোর্টে রিট করেন। এই রিটের প্রেক্ষিতে ১ মাসের মধ্যে তদন্ত শেষ করার কথা রয়েছে।

 

নির্বাচন কমিশনের নির্দেশনা অনুযায়ী এই তদন্ত চলছে বলে জানান তিনি। তিনি আরও জানান, পর্যায়ক্রমে দায়িত্বপ্রাপ্ত ম্যাজিস্ট্রেট এবং অন্যান্যদেরও জবানবন্দী গ্রহন করা হবে। উল্লেখ্য যে, কলারোয়া পৌর নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের মনিরুজ্জামান বুলবুলকে বিজয়ী ঘোষনা করা হয়।

তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন বিএনপি সমর্থিত প্রার্থী নার্গিস সুলতানা। এই নির্বাচনে ৫ জন মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। এছাড়া ৩৭ জন কাউন্সিলর পদে এবং ১২ জন সংরক্ষিত নারী আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।

 

এসজি/ডেক্স


আপনার মতামত লিখুন :

নিজস্ব প্রতিবেদক। ডেক্স