সাতক্ষীরা প্রেসক্লাব নিয়ে জজ আদালতের রায় হাইকোটে ৬ মাসের জন্য স্থগিত

প্রকাশিত: ১২:২৬ পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ১২, ২০২১ | আপডেট: ১২:২৬:পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ১২, ২০২১
সাতক্ষীরা প্রেসক্লাব

সাতক্ষীরা প্রেসক্লাব সংক্রান্ত মামলায় জেলা জজ আদালতের অবজারভেশন ও ডাইরেক্টশন ৬ মাসের জন্য স্থগিত করেছে হাইকোর্ট। মহামান্য হাইকোটের বিচারপতি একেএম শাহিদুর রহমানের একক বেঞ্চে সোমবার শুনানী শেষে এ আদেশ প্রদান করেন। সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা অধ্যক্ষ আবু আহমেদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এরআগে সাতক্ষীরা জেলা জজ আদালতে মিস আপিল ৩১/২০ নম্বর মামলায় গত ১৪ ডিসেম্বর ২০২০ তারিখের দেওয়া রায়ের বিরুদ্ধে বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগে রিভিশন দায়ের করেন অধ্যক্ষ আবু আহমেদ। যার সিরিয়াল নম্বর ৫৭ এবং এন্টি সিরিয়াল নম্বর ৩৬। অধ্যক্ষ আবু আহমেদের পক্ষে শুনানীতে অংশ নেন সিনিয়র এডভোকেট এম কে রহমান, এডভোকেট মোহাম্মাদ হোসেন ও এডভোকেট তৌহিদুর রহমান।

উল্লেখ্য সাতক্ষীরা প্রেসক্লাব দখল সংক্রান্ত মামলায় সাতক্ষীরা সদর সিনিয়র জজ আদালতের গত ৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ তারিখের আদেশের বিরুদ্ধে জেলা জজ আদালতে আপীল করেন দৈনিক দৃষ্টিপাত সম্পাদক জিএম নুর ইসলাম। গত ১৪ ডিসেম্বর ২০২০ সাতক্ষীরা জেলা জজ আদালত জিএম নুর ইসলাম এর আপীল নামঞ্জুর করেন এবং সর্বশেষ নির্বাচিত সভাপতি অধ্যক্ষ আবু আহমেদ ও সাধারণ সম্পাদক মমতাজ আহমেদ বাপির নেতৃত্বাধীন কমিটির পক্ষে রায় প্রদান করেন।

বিজ্ঞ আদালত একই আদেশে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের সদস্যপদ যাচাই-বাছাই ও নতুন সদস্যপদ প্রদানের জন্য সাতক্ষীরার পুলিশ সুপারকে প্রধান করে জেলা প্রশাসক, এনএসআই, ডিজিএফআই এর একজন করে প্রতিনিধি এবং জেলা নির্বাচন অফিসার ও সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের সর্বশেষ নির্বাচিত সভাপতি অধ্যক্ষ আবু আহমেদ ও সাধারণ সম্পাদক মমতাজ আহমেদ বাপির নেতৃত্বে ৭ সদস্যের একটি কমিটি গঠন করে ৪০ দিনের মধ্যে নির্বাচন সম্পন্ন করার আদেশ দেন। বিজ্ঞ আদালতের এই আদেশ সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের গঠনতন্ত্রের সাথে সাংঘর্ষিক হওয়ায় প্রেসক্লাবের পক্ষে সভাপতি অধ্যক্ষ আবু আহমেদ কার্যনির্বাহী কমিটির সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সিভিল রিভিশন মামলাটি দায়ের করেন।

 

এসজি/ডেক্স


আপনার মতামত লিখুন :

নিজস্ব প্রতিবেদক। ডেক্স