মুক্তিযোদ্ধারা আমাদের গর্ব, কপিলমুনিতে মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রণালয়ের সচিব তপন ঘোষ

প্রকাশিত: ৭:৪১ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৫, ২০২০ | আপডেট: ৭:৪১:অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৫, ২০২০
কপিলমুনিতে মুক্তিযোদ্ধা চত্ত্বরে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সংবর্ধিত অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রণালয়ের সচিব তপন কান্তি ঘোষ।

‘পাকিস্তানী হায়নাদের কবল থেকে যারা জীবন বাজী রেখে এদেশকে স্বাধীন করেছিলেন সেই মুক্তিযোদ্ধারা আমাদের গর্ব। তারাই এদেশের মানুষের শ্রেষ্ঠ সম্পদ। মুক্তিযোদ্ধারা আমাদের গৌরব ও অহংকারের মানস পুত্র।’

 

রবিবার বিকেল ৫ টায় কপিলমুনি মুক্তিযোদ্ধা কার্যালয় চত্ত্বরে হরিঢালী-কপিলমুনি ইউনিয়নের বীর মুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিযোদ্ধা সন্তানদের এক যৌথ সংবর্ধনা সভায় সংবর্ধিত অতিথি হিসেবে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের সচিব তপন কান্তি ঘোষ উপরোক্ত কথাগুলো বলেন, ‘তিনি আরো বলেন, ‘বঙ্গবন্ধ’ুর সোনার বাংলাকে বিশ্বের অন্যতম মর্যাদাশীল রাষ্ট্রে পরিণত করতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।’

পাইকগাছা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এ বি এম খালিদ হোসেন সিদ্দিকীর সভাপতিত্বে ও উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদ কমান্ডের সদস্য সচিব আ’লীগ নেতা সরদার গোলাম মোস্তফা’র সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মুহাম্মদ আরাফাতুল আলম, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ রশীদুজ্জামান, অধ্যক্ষ হাবিবুল্যাহ বাহার, বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ শাহাদাৎ হোসেন বাচ্চু, সাবেক উপাধ্যক্ষ মোঃ আফসার আলী, ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ কওছার আলী জোয়ার্দার, ওসি তদন্ত মোঃ আরশাদ আলী, এম বুলবুল আহম্মেদ প্রমূখ।

অনুষ্ঠানে সংবর্ধিত অতিথিকে ক্রেস্ট উপহার দেন খুলনা বি এল কলেজের সহকারী অধ্যাপক হারুন অর-রশীদ ও ফুল দিয়ে বরণ করে নেন আ’লীগ নেতা শেখ ছাকিয়ার রহমান ছাকি, পরমানন্দ মন্ডল ও উপজেলা ছাত্রলীগের সাঃ সম্পাদক তানজীম মুস্তাফিজ বাচ্চু। অনুষ্ঠানের শুরুতে কপিলমুনি মেহেরুন্নেছা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্রীরা জাতীয় সংগীত পরিবেশন করেন।


আপনার মতামত লিখুন :

এইচ এম এ হাশেম। নিজস্ব প্রতিবেদক। কপিলমুনি, খুলনা