সাতক্ষীরা জেলা যুবলীগের আহবায়ক মান্নান বহিষ্কার

প্রকাশিত: ৯:৫৫ অপরাহ্ণ, আগস্ট ৫, ২০২০ | আপডেট: ১০:০০:অপরাহ্ণ, আগস্ট ৫, ২০২০
সাতক্ষীরা জেলা যুবলীগের আহবায়ক মান্নান

সাতক্ষীরার বাঁকাল জেলেপাড়ায় সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের (হিন্দুদের) বাড়ি দখল ও সংগঠন বিরোধী কার্যকলাপে জড়িত থাকার অভিযোগে জেলা যুবলীগের আহবায়ক আব্দুল মান্নানকে বহিষ্কার করা হয়েছে। বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারন সম্পাদক আলহাজ্জ মোঃ মাইনুল হোসেন খান নিখিল স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তি এ তথ্য জানানো হয়েছে।

 

প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে আরো উল্লেখ করা হয়েছে, সংখ্যালঘু সম্প্রদায় হিন্দুদের বাড়ি দখল ও সংগঠন বিরোধী কার্যকলাপে জড়িত থাকার অভিযোগে সাতক্ষীরা জেলা যুবলীগের আহবায়ক আব্দুল মান্নানকে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশের নির্দেশে সংগঠন থেকে বহিষ্কার করা হলো। যার স্মারক নং- বা,,যু-০০৮/২০২০, তারিখ-০৩.০৮.২০২০ ইং ।

 

উল্লেখ্য: গত ৩০ জুন বৃহস্পতিবার রাতে যুবলীগ নেতা মান্নানের নেতৃত্বে ৩০/৪০ জন সন্ত্রাসী সাতক্ষীরা শহরের দক্ষিণ কাটিয়ার মুজিবর পেশকারের পক্ষে সদর উপজেলার বাঁকাল জেলেপাড়ায় নিরঞ্জন মাখাল ও পূর্ণিমার বাড়িতে হামলা, ভাঙচুর ও লুটপাট চালায়। এতে বাধা দেওয়ায় নিরঞ্জন মাখাল, তার স্ত্রী অহল্যা, সহদেব মাখাল ও বলরাম মাখালকে পিটিয়ে জখম করা হয়। এঘটনায় স্থানীয়রা ওই রাতেই সাতক্ষীরা-কালিগঞ্জ সড়ক অবরোধ করে ঝাঁটা মিছিল করলে পুলিশ মুজিবর ও তার ছেলে শুভকে আটক করে নিয়ে যায়।

এরপর অদৃশ্য কারনে ওই রাতেই তাদের আবার ছেড়ে দেয়া হয়। পরদিন শুক্রবার সকাল ১০টায় বিষয়টি নিয়ে থানায় বসাবসির কথা থাকলেও বেলা ১২ টা পর্যন্ত হামলাকারি পক্ষ থানায় আসেননি। এক পর্যায়ে নিরঞ্জন মাখাল বাদি হয়ে যুবলীগ নেতা আব্দুল মান্নানসহ পাঁচজনের নাম ও অজ্ঞাতনামা ১৬জনকে আসামী করে থানায় একটি এজাহার জমা দিলে পুলিশ গত পহেলা আগষ্ট মামলাটি রেকর্ড করেন। যার মামলা নং-২।

এ ঘটনায় জেলা যুবলীগের আহবায়ক আব্দুল মান্নানসহ পাঁচ আসামীর গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবীতে গত সোমবার শহীদ আব্দুর রাজ্জাক পার্ক সংলগ্ন সাতক্ষীরা-আশাশুনি সড়কে মানববন্ধন কর্মসুচি পালিত হয়।

বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু মহাজোটের সাতক্ষীরা জেলা শাখার সভাপতি প্রাণনাথ দাসের সভাপতিত্বে মানবন্ধনে বক্তব্য রাখেন, জেলা যুব ঐক্য পরিষদের সদস্য সচিব রণজিৎ ঘোষ, জেলা যুব মহাজোটের সভাপতি সন্দীপ বর্মণ, যুব ঐক্য পরিষদের সদস্য মিলন রায়, মিঠুন ব্যাণার্জী প্রমুখ। এছাড়াও তার বিরুদ্ধে রয়েছে নানা অভিযোগ।


আপনার মতামত লিখুন :

নিজস্ব প্রতিবেদক। ডেক্স